অনলাইনে নতুন ভোটার হওয়ার নিয়ম ২০২৩ । ভোটার আইডি কার্ড করার নিয়ম - Radiodimla: রেডিও ডিমলা বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম

অনলাইনে নতুন ভোটার হওয়ার নিয়ম ২০২৩ । ভোটার আইডি কার্ড করার নিয়ম

নতুন ভোটার হওয়ার নিয়ম ২০২৩,অনলাইনে নতুন ভোটার হওয়ার নিয়ম,নতুন ভোটার হওয়ার নিয়ম ২০২১,নতুন ভোটার হওয়ার নিয়ম ২০২২,নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন,নতুন ভোটার আইডি কার্ড করার নিয়ম,অনলাইনে নতুন ভোটার নিবন্ধন,নতুন ভোটার আইডি কার্ড করার নিয়ম ২০২২,নতুন ভোটার আবেদন ফরম ডাউনলোড,নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন ফরম

বাংলাদেশের সকল নাগরিকদের জন্য পরিচয় সনদ হচ্ছে ভোটার কার্ড যাকে জাতীয় পরিচয় পাতা বা সংক্ষেপে এনআইডি জানানো হয়। রাষ্ট্রের ভিতর এটা পরিচয় প্রমাণের প্রধান মাধ্যম। আঠার বছর পূর্ণ হলে ভোটদাতা আইডি করা সবার জন্য বাধ্যতা মূলক করা হয়ে গিয়েছে আইনে। এইজন্য নিজেকে ভোটারে অন্তর্ভুক্ত করা আবশ্যক কর্তব্য। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন এ কার্ড প্রদানসহ যাবতীয় কাজ নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। নতুন ভোটদাতা কিভাবে হবেন অথবা ভোটার হতে কি কি লাগে বা NID পেতে প্রক্রিয়া কি তা নিয়ে আজকের পোস্টটি সাজানো হয়েছে।

নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন

বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নাগরিকদের যে পরিচয় সনদ প্রদান করা হয় তাকে জাতীয় পরিচয়পত্র বা ভোটার আইডি কার্ড কিংবা সংক্ষেপে এনআইডি (NID) বলা হয়। বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিকদের জন্য এটি অত্যান্ত গরুত্বপূর্ণ একটি সনদ। সরকারী বেসরকারী যে কোন দাপ্তরিক কাজে এটি প্রয়োজন হয়। বর্তমানে জতীয় পরিচয়পত্রের স্মার্ট কার্ড প্রদান করা হয়। আপ্ননারা যারা নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করতে চান তারা আমাদের পোষ্ট সমস্ত পড়ুন তাহলে বুঝতে পারবেন।

নতুন ভোটার হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

নতুন ভোটার হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র যা যা আপনার লাগবে ,এবং নির্বাচন অফিসে যে সকল কাগজপত্র জমা দিতে হয় তা নিচে দেওয়া হলোঃ

  • জর্ম্ম সনদের ফটোকপি
  • পিতা মাতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি
  • চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রত্যায়ন পত্র
  • শিক্ষিত হলে এসএসসি সনদসহ শিক্ষাগত সনদের সত্যায়িত ফটোকপি
  • রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা করা হলে তার ফটোকপি
  • বিদ্যুৎ বিল (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)
  • জমির কাগজ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)
  • ভোটার হই নাই মর্মে অঙ্গিকার নামা
  • বাড়ির টেক্স পরিশোধীত রশিদের ফটোকপি
  • বিবাহিত হলে স্বামী/স্ত্রী জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি ও বিবাহিত সনদ পত্রের ফটোকপি
  • নাগরিক সনদ

অনলাইনে ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন

অনলাইনে ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করার জন্য উপরে সকল কাগজ নিয়ে অনলাইনে আবেদন করার পর আবেদন কপি প্রিন্ট করে নিন। আবেদন পত্রের ৩৫ নং ক্রমিকে ইউপি সদস্য/ওয়ার্ড কাউন্সিলর এর সিল ও স্বাক্ষর,এবং ৩৭ ক্রমিকে পরিবারের সদস্যের স্বাক্ষর এবং ৪০,৪১ ও ৪২ নং ক্রমিকে চেয়ারম্যান/মেয়র এর নাম, জাতীয় পরিচয় পত্র নং উল্লেখ পূর্ব ক সীল এবং স্বাক্ষরীত করার পর আপনার উপজেলার নির্বাচন অফিসে নিয়ে জমা দিতে হবে। এবং আপনার এনাইড়ির জন্য আপনাকে ছবি এবং সহ অনন্যা কাজ শেষ করতে হবে।

জাতীয় পরিচয় পত্র চেক ও ডাউনলোড করার নিয়ম

অনলাইনে জাতীয় পরিচয় পত্র বা ভোটার আইডি কার্ড চেক করতে বা জাতীয় পরিচয় পত্র যাচাই করতে প্রথমেই আপনাকে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েব সাইটে https://services.nidw.gov.bd/voter_center প্রবেশ করতে হবে। নিজেই নিজের ভোটার আইডি কার্ড

উক্ত লিংকে ঢোকার পর পেইজের ১ম বক্সে "ফরম নম্বর বা এনআইডি নম্বর" মার্ক করে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র বা ভোটার নিবন্ধন ফরমের ঐ ৮ সংখ্যার স্লিপ নম্বর বা ভোটার আইডিত নাম্বার দিন। এরপর বাঁকি সব কিছু ঠিকঠাক পূরন করে "ভোটার তথ্য দেখুন" বাটনে ক্লিক করলেই নিচের চিত্রের মত ভোটার আইডি কার্ড চেক এর তথ্য দেখতে পাবেন। অনলাইনেই মিলবে জাতীয় পরিচয় পত্র মানে এখন অনলাইন থেকে আপনার আইডি কার্ড সংগ্রহ করুন।

এখন উক্ত পেজ থেকে আপনার NID নম্বরটি লিখে নিন অনলাইনে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোডের জন্য। ভোটার আইডি কার্ড অনলাইন কপি পেতে এখন রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্টার করার সময় সঠিক ভাবে ঠিকানাগুলো সিলেক্ট করুন। অতঃপর যে নম্বরটি দেওয়া আছে ঐ নম্বরটিতে বার্তা পাঠান অথবা ফোন নাম্বার চেঞ্জ করে বার্তা পাঠান এবং যাচাই কোড ডায়াল করুন।

যাচাই কোড ডায়াল করার পর একটি QR কোড আসবে। QR কোড স্ক্যানিং করার জন্য বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের যে Nid Wallet app আছে সেটা দিয়ে স্ক্যানিং করুন। এরপর আপনার প্রোফাইলে গিয়ে nid card ডাউনলোড করতে পারবেন।

নতুন ভোটার হতে কি কি লাগবে ২০২২

  • নতুন ভোটার হতে যে সমস্ত কাগজ লাগবে তার মধ্যে অন্যতম একটি কাগজ হলো জন্ম নিবন্ধন সনদ। আপনাকে অবশ্যই একটি জন্ম নিবন্ধন সনদ থাকতে হবে । যদি আপনি ভোটার হতে চান। পাশাপাশি আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ টি অবশ্যই অনলাইনে English থাকতে হবে।
  • অনলাইন জমা দেওয়া ফর্মের প্রিন্ট কপি
  • S.S.C. অথবা সমমানের সার্টিফিকেট (বয়স প্রমাণের জন্য)
  • জন্ম সনদ (বয়স প্রমাণের জন্য)
  • পাসপোর্ট / ড্রাইভিং লাইসেন্স / টিন সার্টিফিকেট (বয়স প্রমাণের জন্য)
  • বাবা, মা, স্বামী/স্ত্রীর আইডি কার্ডের ফটোকপি (অবশ্যই)
  • ইউটিলিটি বিলের কপি/বাড়ি ভাড়ার রসিদ/হোল্ডিং ট্যাক্স রসিদ (ঠিকানার প্রমাণ হিসেবে)
  • নাগরিকত্ব সনদ (প্রযোজ্য হিসাবে)

অনলাইনে নতুন জাতীয় পরিচয়পত্র ও ভোটার নিবন্ধন প্রক্রিয়া

  • NID Application System এ একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন
  • ব্যক্তিগত তথ্য প্রদান
  • অনলাইন আবেদন জমা
  • আবেদন ভেরিফিকেশন
  • বায়োমেট্রিক প্রদান (Biometric Information- Picture, Fingerprint)
  • জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড/ সংগ্রহ

তুরান হোসেন

আসসালামু আলাইকুম,আমি তুরান হোসেন অবসর সময়ে ব্লগিং করতে ভালোবাসি। নিজে যতটুকু জানি তা অন্যকে জানাতে পছন্দ করি। নিজে জানুন অন্যকে জানানোর সুযোগ দিন।

আরও ব্লগ নতুন ব্লগ

গুগল নিউজে ফলো করুন

POST ADS 2